1. apbiman2015@gmail.com : Ashish Poddar Biman : Ashish Poddar Biman
  2. ganasonghoti@gmail.com : Daily Ganasonghoti : Daily Ganasonghoti
  3. jmitdomain@gmail.com : admin admin : admin admin
  4. sumonto108@gmail.com : Sumonto Sutradhar : Sumonto Sutradhar
বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪, ০৫:১১ পূর্বাহ্ন
সদ্যপ্রাপ্তঃ
ফরিদপুরে নারী ইউপি সদস্যকে মারধরের অভিযোগ বালু ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে ফরিদপুরের দাঁড়াতে পারিনি কোটা আন্দোলনকারীরা-শিক্ষার্থীরা ভাঙ্গায় দুটি বাসের সংঘর্ষে তিন জন নিহত, আহত ৩০। ফরিদপুরে কোটা আন্দোলনকারীদের হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ ও মহাসড়ক অবরোধ করে আন্দোলনকারীরা যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামিকে ‌ গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১০, সিপিসি-৩, ফরিদপুরে আওয়ামী যুবলীগ ও ছাত্রলীগের উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত কোটা বহালের দাবীতে সালথায় মুক্তিযোদ্ধাদের মানববন্ধন ফরিদপুরে কোটা বিরোধী আন্দোলনকারীদের উপর ছাত্রলীগের হামলা, আহত দুজন ফরিদপুরে কোটাবিরোধী আন্দোলনকারীদের বিরুদ্ধে ছাত্রলীগের বিক্ষোভ মিছিল বরখাস্ত হতে চলেছেন যৌননিপীড়ক জয়নুল মাস্টার তদন্ত কমিটি গঠন , শাস্তি চেয়ে স্মারকলিপি ডিসিকে
শিরোনাম :
ফরিদপুরে নারী ইউপি সদস্যকে মারধরের অভিযোগ বালু ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে ফরিদপুরের দাঁড়াতে পারিনি কোটা আন্দোলনকারীরা-শিক্ষার্থীরা ভাঙ্গায় দুটি বাসের সংঘর্ষে তিন জন নিহত, আহত ৩০। ফরিদপুরে কোটা আন্দোলনকারীদের হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ ও মহাসড়ক অবরোধ করে আন্দোলনকারীরা যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামিকে ‌ গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১০, সিপিসি-৩, ফরিদপুরে আওয়ামী যুবলীগ ও ছাত্রলীগের উদ্যোগে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত কোটা বহালের দাবীতে সালথায় মুক্তিযোদ্ধাদের মানববন্ধন ফরিদপুরে কোটা বিরোধী আন্দোলনকারীদের উপর ছাত্রলীগের হামলা, আহত দুজন ফরিদপুরে কোটাবিরোধী আন্দোলনকারীদের বিরুদ্ধে ছাত্রলীগের বিক্ষোভ মিছিল বরখাস্ত হতে চলেছেন যৌননিপীড়ক জয়নুল মাস্টার তদন্ত কমিটি গঠন , শাস্তি চেয়ে স্মারকলিপি ডিসিকে

অর্থনৈতিক শক্তির বাংলাদেশ

  • Update Time : শুক্রবার, ৩ নভেম্বর, ২০২৩
  • ৭৩ Time View

অর্থনৈতিক শক্তির বাংলাদেশ

ড. খালেদ মাহমুদ

বাংলাদেশ, দক্ষিণ এশিয়ায় অবস্থিত একটি দেশ, যা গত কয়েক দশক ধরে রূপান্তর ও উন্নয়নের এক অসাধারণ যাত্রায় রয়েছে। তার বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ সত্ত্বেও, ১৬০ মিলিয়নেরও বেশি মানুষের এই জাতি বিভিন্ন ক্ষেত্রে অপার সম্ভাবনা প্রদর্শন করেছে; একটি প্রতিশ্রুতিশীল ভবিষ্যতের মঞ্চ তৈরি করেছে। বাংলাদেশ ধারাবাহিকভাবে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অর্জন করেছে এবং দক্ষিণ এশিয়ার অনেক প্রতিবেশী দেশকে ছাড়িয়ে গেছে। গত এক দশকে জিডিপি বৃদ্ধির হার ধারাবাহিকভাবে ৭% অতিক্রম করে, এটি বিশ্বের দ্রুততম বর্ধনশীল অর্থনীতির একটি। এই প্রবৃদ্ধি প্রধান খাত উত্পাদন, পরিষেবা এবং কৃষি দ্বারা চালিত, যেখানে টেক্সটাইল, তৈরি পোশাক এবং বাংলাদেশি প্রবাসীদের কাছ থেকে রেমিটেন্স উল্লেখযোগ্য অবদান রাখে।

বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সম্পদের একটি হল এর বিশাল তরুণ জনসংখ্যা। যাদের গড় বয়স প্রায় ২৬ বছরের মত। বাংলাদেশ এই গতিশীল এবং দক্ষ কর্মীবাহিনী নিয়ে গর্ব করে। এই জনসংখ্যাগত লভ্যাংশ শিল্পের জন্য একটি প্রতিযোগিতামূলক সুবিধা নিয়ে এসেছে, যা উৎপাদন, প্রযুক্তি বা পরিষেবা-ভিত্তিক শিল্পের বিকাশের জন্য খুবই উপযোগী। বাংলাদেশের কৌশলগত ভৌগোলিক অবস্থান ব্যবসা-বাণিজ্যের জন্য একটি আশীর্বাদ। কারণ বাংলাদেশ ভারত, মায়ানমারের সাথে সীমান্ত ভাগ করে এবং চীনের কাছাকছি। এই কৌশলগত অবস্থান এটিকে আঞ্চলিক বাজারের একটি আদর্শ গেটওয়ে করে তুলেছে, যা এই অঞ্চলে ৪ বিলিয়ন গ্রাহকদের অ্যাক্সেসের নিশ্চিত করে।

বাংলাদেশে ক্রমবর্ধমান মধ্যবিত্ত শ্রেণি দ্রুত সম্প্রসারিত হচ্ছে এবং একটি সমৃদ্ধ ভোক্তা বাজার তৈরি করছে। ভোগ্যপণ্য, ইলেকট্রনিক্স, অটোমোবাইল, স্বাস্থ্যসেবা এবং শিক্ষার মতো পরিষেবার চাহিদা বাড়ছে। এটি স্থানীয় এবং বিদেশি ব্যবসার জন্য সমানভাবে লাভজনক সুযোগ নিয়ে এসেছে। বাংলাদেশ সরকার ব্যবসা-বান্ধব পরিবেশ গড়ে তোলার জন্য দৃঢ় প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। বাংলাদেশ সরকার বিদেশি বিনিয়োগকারীদের আকৃষ্ট করার লক্ষ্যে প্রণোদনা এবং বিনিয়োগ নীতিমালা সংস্কারের ব্যবস্থা নিয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে কর ছাড়, মূলধনী যন্ত্রপাতির শুল্কমুক্ত আমদানি এবং ওয়ান-স্টপ সার্ভিস অ্যাক্ট-এর মাধ্যমে সুবিন্যস্ত প্রশাসনিক প্রক্রিয়া।

বাংলাদেশ অবকাঠামো উন্নয়নে ব্যাপক বিনিয়োগ করছে। পদ্মা সেতুর মতো প্রকল্প, যা দেশের পশ্চিম ও পূর্বাঞ্চলকে সংযুক্ত করবে এবং গভীর সমুদ্র বন্দরগুলি সংযোগ ও বাণিজ্যের সুযোগকে ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি করবে। এই উদ্যোগগুলো আরও অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির জন্য গুরুত্বপূর্ণ। বাংলাদেশ ক্রমবর্ধমানভাবে সৌর এবং বায়ু শক্তি সহ নবায়নযোগ্য শক্তির উৎসতে মনোযোগ দিচ্ছে। দেশটি টেকসই উন্নয়নের দিকে অগ্রসর হচ্ছে এবং নবায়নযোগ্য শক্তিতে বিনিয়োগের জন্য একটি শক্তিশালী অব্স্থান তৈরি করেছে।

দক্ষ সফ্টওয়্যার নির্মাতা, প্রকৌশলী এবং ডিজাইনারদের ক্রমবর্ধমান পুলসহ বাংলাদেশের আইটি শিল্প যথেষ্ট বৃদ্ধি পেয়েছে। আউটসোর্সিং এবং সফ্টওয়্যার বিকাশের সুযোগগুলো দেশি এবং বিদেশি উভয় বিনিয়োগকারীদের জন্য উপযুক্ত। বাংলাদেশ একটি ক্রমবর্ধমান গতিশীল উদ্যোক্তা ইকোসিস্টেম গড়ে তুলছে। সরকার স্টার্টআপ, উদ্ভাবন এবং প্রযুক্তি-ভিত্তিক উদ্যোগের প্রচারের জন্য বিভিন্ন উদ্যোগ চালু করেছে। ফলস্বরূপ, আমরা স্টার্টআপ, কো-ওয়ার্কিং স্পেস এবং ইনোভেশন হাব-এর সফলতা দেখতে পাচ্ছি।

বাংলাদেশ সক্রিয়ভাবে বিদেশি বিনিয়োগ, প্রযুক্তিগত সহযোগিতা এবং জ্ঞান স্থানান্তরের জন্য আন্তর্জাতিক অংশীদারিত্বে যুক্ত রয়েছে। দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য চুক্তি এবং বৈদেশিক প্রত্যক্ষ বিনিয়োগ (এফডিআই) সুরক্ষাগুলো শক্তিশালী করা হচ্ছে, যা দেশের বৈশ্বিক ব্যবসায়িক ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে।

এটা স্বীকার করা গুরুত্বপূর্ণ যে বাংলাদেশসহ যেকোনো দেশে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে কিছু চ্যালেঞ্জ এবং উদ্বেগ আসে। এগুলো হচ্ছে, রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা, নিয়ন্ত্রক কাঠামো এবং অবকাঠামোগত সীমাবদ্ধতা। এটা লক্ষণীয় যে, বাংলাদেশ এই সমস্যাগুলো মোকাবেলা করতে এবং আরও বিনিয়োগ-বান্ধব পরিবেশ তৈরি করতে উল্লেখযোগ্য পদক্ষেপ নিচ্ছে।

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে দেশের রাজনৈতিক স্থিতিশীলতার উন্নতি হয়েছে। সরকার অবকাঠামোগত উন্নয়নের জন্য কাজ করছে। পরিবহন, শক্তি এবং সংযোগ উন্নত করার জন্য অনেকগুলি প্রকল্প চলছে। ক্রমবর্ধমান অর্থনৈতিক শক্তি হিসেবে বাংলাদেশের সম্ভাবনা অনেক। এর শক্তিশালী অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি, গতিশীল কর্মশক্তি, কৌশলগত অবস্থান, এবং একটি অনুকূল ব্যবসায়িক পরিবেশ গড়ে তোলার প্রতিশ্রুতি সহ, এটি দেশি এবং বিদেশি বিনিয়োগকারীদের জন্য একইভাবে বিভিন্ন সুযোগ প্রদানে বদ্ধ পরিকর।

উৎপাদন, প্রযুক্তি, পরিষেবা বা নবায়ণযোগ্য শক্তি যাই বিবেচনা করা হোক, বাংলাদেশ বিনিয়োগের জন্য অত্যন্ত সম্ভাবনময় একটি গন্তব্য। বাংলাদেশে বিনিয়োগ মানে শুধুমাত্র আর্থিক রিটার্ন নয়; এটি একটি রূপান্তরমূলক গল্পের অংশ হয়ে ওঠার মত। বিশ্ব মঞ্চে বাংলাদেশের ক্রমাগতভাবে উত্থান হচ্ছে। আগামী বছরগুলোতে, আমরা আশা করতে পারি যে, বাংলাদেশ বিশ্ব অর্থনীতিতে ক্রমবর্ধমানভাবে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে এবং যারা আজ এর সম্ভাবনাকে চিনতে পেরেছে তারা এই বিকশিত অর্থনৈতিক ল্যান্ডস্কেপের সাথে যুক্ত হয়ে ভাল অবস্থানে থাকবে।

লেখক: সহযোগী অধ্যাপক, ব্যবসায় প্রশাসন ইনস্টিটিউট, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।

Please Share This Post...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
The Daily Ganasonghoti © 2020
support By : Ganasonghati